উপজেলাগাজীপুরচিকিৎসা ও স্বাস্থ্যবাংলাদেশসংবাদসামাজিকস্থানীয় সংবাদ

কাপাসিয়ার বেসরকারী হাসপাতালে করোনা রোগীর চিকিৎসা শুরু

কাপাসিয়া (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ কাপাসিয়ায় প্রতিষ্ঠিত বেসরকারি মডিউল কমিউনিটি হাসপাতালে উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের ব্যবস্থাপনায় করােনাভাইরাসে আক্রান্ত রােগীদের চিকিৎসাসেবা শুরু হয়েছে।

কাপাসিয়া (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ কাপাসিয়ায় প্রতিষ্ঠিত বেসরকারি মডিউল কমিউনিটি হাসপাতালে উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের ব্যবস্থাপনায় করােনাভাইরাসে আক্রান্ত রােগীদের চিকিৎসাসেবা শুরু হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যায় মালিক পক্ষ উপজেলা প্রশাসনের কাছে হাসপাতালটির দায়িত্ব হস্তান্তর করেছে। বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত ৬ জন রােগীকে এ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। করােনায় আক্রান্ত উপজেলার অন্য রােগীদেরও পর্যায়ক্রমে এখানে নিয়ে আসা হচ্ছে।

জানা যায়, সম্প্রতি কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তাসহ চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্য সহকারী, টেকনিশিয়ান ও বিভিন্ন পদে কর্মরত মােট ৩১ জন স্টাফ করােনায় আক্রান্ত হওয়ার পর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাসেবা সীমিত করা হয়েছে।

কাপাসিয়ায় ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত মােট ৭০ জন করােনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। এর মধ্যে একজন রােগী মারা যান। আক্রান্তদের বিভিন্ন হাসপাতাল, কারখানা ও নিজ বাড়িতে আইসােলেশনে রাখা হয়েছে। এতে নিবিড় পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে তাদের সমন্বিত চিকিৎসাসেবা প্রদান সম্ভব হচ্ছিল না এবং অনেকেই আইসােলেশনের নিয়ম মানছিলেন না।

তাছাড়া আক্রান্তরা নিজ বাড়িতে অবস্থান করায় পাড়া – প্রতিবেশীসহ জনমনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া হচ্ছিল। বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনায় নিয়ে কাপাসিয়ার সংসদ সদস্য সিমিন হােসেন রিমির উদ্যোগে উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ ‘মডিউল কমিউনিটি হাসপাতালকে’ করােনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য বেছে নেয়।

কাপাসিয়ার কৃতী সন্তান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিশু সার্জারি বিভাগের প্রাক্তন বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. রুহুল আমীন উপজেলা সদর থকে প্রায় ১০ কিলােমিটার দূরে রায়েদ দরগা বাজারের পূর্বপাশে এ হাসপাতালটি প্রতিষ্ঠা করেন।

এ বিষয়ে অধ্যাপক ডা. রুহুল আমীন বলেন, দেশের এই ক্রান্তিকালে তার হাসপাতালটি করােনায় আক্রান্তদের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হবে, এটা তার জন্য অনেক সৌভাগ্যের বিষয়। এ মহৎ কাজে তার হাসপাতালকে বেছে নেওয়ায় তিনি সিমিন হােসেন রিমি এমপি, উপজেলা চেয়ারম্যান আমানত হােসেন খান, ইউএনও ইসমত আরাসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মাে. আব্দুর রহিম জানান, একজন মেডিকেল অফিসার করােনায় আক্রান্তদের তদারকি করবেন। আর তাদের খাবারসহ আনুষঙ্গিক খরচ সিমিন হােসেন রিমি এমপি বহন করবেন।

মূল খবরঃ
দৈনিক সমকাল

Facebook Comments
Tags

Related Articles

Back to top button
Close
Close