টং দোকান থেকে মুস্তাফা সেন্টার- সিঙ্গাপর

115

সিঙ্গাপুরে এসেছে এমন কোন বাংলাদেশী নাই যে মুস্তাফা প্লাজা বা শপিং সেন্টারের নাম শুনে নাই। আসুন চিনি এর পিছনের ব্যক্তিকে। মুস্তাফা প্লাজার স্থপতি মুস্তাক আহমদ। মুস্তাক আহমদের জন্ম ভারতের উত্তরপ্রদেশে ১৯৫১ সালে। ৬ বছর বয়সে মুস্তাক বাবার সাথে সিঙ্গাপুর পাড়ি জমায়।

তার বাবা তখন ছোট একটি খাবারের স্টল চালাত। ১৬ বছর বয়সে সে বাবার বাবার দোকানের সাথে একটি জামা-কাপড়ের দোকান দিয়ে বসে। এর পর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয় নি। ১৯৭১ সালে দোকানটি ৫০০ স্কয়ারফিটে উন্নিত করেন মুস্তাক।

বাবা আর চাচার নামানুসারে দোকানের নাম রাখেন “মোহামেদ মুস্তাফা এন্ড সামসুদ্দিন”। সেখান থেকে ১৯৯৫ সালে আজকের মুস্তাফা সেন্টারের জন্ম। ২০০৩ সাল থেকে এই ডিপার্টমেন্টাল স্টোর খোলা থাকছে ২৪ ঘন্টা জুড়ে। কাজ করছে প্রায় ২০০০ লোক।
মোস্তাক আহমেদ সিঙ্গাপুরের ৪০ ধনী ব্যক্তির একজন।