দুর্নীতিকে প্রতিহত করতে না পারলে সোনার বাংলা গড়া সম্ভব নয়- সোহেল তাজ

0
402

গত জুলাই মাসে আমার বাবা তাজউদ্দীন আহমদের জন্মদিন উপলক্ষে কাপাসিয়া তে এক প্রোগ্রামে..

গাজীপুর প্রেস থেকে:

স্বাধীন বাংলার প্রথম প্রধানমন্ত্রী মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক বঙ্গবন্ধুর অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ সহচর জাতীয় চার নেতার একজন বঙ্গতাজ তাজউদ্দীন আহমেদের ৯৪ তম জন্মদিন আগামী ২৩ জুলাই। তাজউদ্দিন আহমেদের জন্মদিন উপলক্ষে তার জন্মস্থান গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলায় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন ১০ দিনের কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু সহ তার পরিবারের সদস্যরা বিপথগামী কিছু সেনা সদস্যদের হাতে নির্মমভাবে খুন হওয়ার পর, তখনকার সময় জেলে বন্দি থাকা আমার বাবাসহ জাতীয় চার নেতা কে বলা হয়েছিল মন্ত্রিত্ব নাও অথবা মৃত্যুকে বেছে নাও। সোহেল তাজ বলেন, সেদিন আমার বাবা সহ নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশ তথা বাঙালি জাতির সাথে বেইমানি করে নি। তারা মন্ত্রিত্ব গ্রহণ না করে, সেদিন দেশের স্বার্থে নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন আমার বাবাসহ জাতীয় নেতৃবৃন্দ।

তিনি বলেন, বাবার মতো আমরা ভাইবোনেরা প্রয়োজনে জীবন দিব, তবু কোনো দুর্নীতির সাথে আপোস করব না। সোহেল তাজ বলেন, আপনাদের সাংসদ সিমিন হোসেন রিমি আমারই বোন অর্থাৎ তাজউদ্দিন পরিবারের একজন সদস্য। তাই আমার বোন সংসদ সদস্য থাকা মানেই আমি থাকা।

দুর্নীতিকে ক্যান্সারের সাথে তুলনা করে সোহেল তাজ বলেন, ক্যান্সার যেমন একজন মানুষকে আস্তে আস্তে তার পুরো দেহ শেষ করে দেয়, ঠিক তেমনি দুর্নীতি ও একটি জাতিকে ক্রমান্বয়ে শেষ করে দেয়। তাই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে হলে অবশ্যই দুর্নীতিকে না বলতে হবে। বাবা মাকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ছেলেমেয়েদেরকে ছোটবেলা থেকেই বঙ্গবন্ধু ও তাজউদ্দীন আহমেদ সহ জাতীয় নেতাদের আদর্শে অনুপ্রাণিত করতে হবে।

তাদেরকে আদর্শের গল্প শোনাতে হবে। আদর্শ বান লোকের জীবনী তাদের সামনে আলোচনা করতে হবে। তাহলে তারা মাদকের ভয়াবহতা থেকে মুক্ত হয়ে দেশকে ভালবাসবে এবং নিজেদেরকে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে সক্ষম হবে।

Facebook Comments