সিংহশ্রী সেতু এখন উদ্বোধন এর প্রহর গুনছে- কাপাসিয়া

158

সিংহশ্রী সেতু এখন উদ্বোধন এর প্রহর গুনছে- কাপাসিয়া

কাপাসিয়া উপজেলা সংবাদদাতাঃ কাপাসিয়া উপজেলার সিংহশ্রী এলাকায় শীতলক্ষ্যা নদীর উপর স্থাপিত সেতুর নির্মাণ কাজ ইতোমধ্যে সমাপ্ত হয়েছে। কাপাসিয়ার সিংহশ্রী শীতলক্ষ্যা সেতু নির্মিত হওয়ায় কাপাসিয়া শ্রীপুর দু‘অঞ্চলের দশ লাখ মানুষের দীর্ঘ দিনের আকাঙ্খা পূরণ হলো। শীতলক্ষ্যা নদীটি দীর্ঘদিন থেকে শ্রীপুর ও কাপাসিয়া উপজেলার দু‘পাড়ের মানুষকে আলাদা করে রেখেছিল । সেতুটি নির্মিত হওয়ার ফলে দু‘উপজেলা বাসীর মধ্যে নতুন করে সংযোগ স্থাপিত হবে। ফলে কাপাসিয়া উপজেলা উত্তর অঞ্চলবাসীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে যুগন্তকারী ভূমিকা রাখবে।

শীতলক্ষ্যা সেতু- সিংহশ্রী

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর সূত্রে জানান যায়, কাপাসিয়া উপজেলা সদর থেকে সিংহশ্রী ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন খেয়া ঘাট এবং শ্রীপুর উপজেলা সদর থেকে বরমীর বড় মা খেয়া ঘাট পর্যন্ত সড়ক পাকাকরণ থাকলেও দুই উপজেলার মধ্যে একটি সেতুর অভাবে সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা ছিল না। বাধা ছিল শিতলক্ষ্যা নদীটি। এখান থেকে খেয়া নৌকা দিয়ে নদী পাড় হতে হতো । কোন যান বাহন এলাকা দিয়ে পার হতে পারত না। সিংহশ্রী টোক, রায়েদ ইউনিয়নবাসীরা যানবাহন নিয়ে ৩০ কিলোমিটার রাস্তা কাপাসিয়া হয়ে শ্রীপুরের বরমী এলাকায় যেতে হতো।

এ দুর্ভোগ লাগবের জন্য স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর গাজীপুর ২৪ কোটি ৯৭লাখ টাকা ব্যয়ে এ সেতুটি নির্মাণ করেছে। সেতুটির দৈর্ঘ্য ৩১৫ মিটার এবং ৯টি পিলার সহ দুপাশে এক মিটার করে রেখে ফুটপাতসহ সেতুটির প্রস্থ ৮ মিটার। তাছাড়া সেতুর উভয় পাড়ে ৩শত মিটার করে দু‘পাড়ে সংযোগ সড়ক নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। ২০১১সালে সেতু’র নির্মাণ কাজ শুরু হয়। সেতু নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান সুরম-আর বি এল(জেবি)। চলতি বছর জানুয়ারীতে মূল সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। সংযোগ সড়ক নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। এ শুধু বাকী উদ্বোধনের আনুষ্ঠানিকতা। সেই মাহেন্দ্র খনের অপেক্ষায় প্রহর গুনছে দু‘পাড়ের কয়েক লাখ লাখ মানুষ।
স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর গাজীপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আমিরুল ইসলাম খান জানান, সেতুটি প্রধানমন্ত্রী কর্র্তৃক উদ্বোধনের প্রত্যাশা নিয়ে সারসংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। সিদ্ধান্ত পাওয়া গেলে যে কোন সময় সেতুটি জনসাধারনের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে। তিনি আরো জানান, সেতুটি চালু হলে কিশোরগঞ্জ জেলারও জনসাধারন এ সেতুটি ব্যবহার করে শ্রীপুর, ময়মনসিংহ ও টাঙ্গাইল জেলায় সহজে যাতায়াত করতে পারবে। এ এলাকার ব্যবসা বাণিজ্যসহ এলাকার মানুষের ভাগ্যের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

এ দিকে কাপাসিয়া সিংহশ্রীতে নব নির্মিত সেতুটি স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী, কাপাসিয়ার কৃতি সন্তান, শহীদ বঙ্গতাজ তাজউদ্দীন আহমদ এর নামে নামকরণের দাবি জানিয়েছেন, কাপাসিয়া প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক শামসুল হুদা লিটন ও গাজীপুর সিটি প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শেখ মনজুর হোসেন মিলন ও স্থানীয় সাংবাদিক, শিক্ষক, সাংস্কৃতিক কর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ।