কালিয়াকৈর উপজেলা

এক নজরে কালিয়াকৈর উপজেলা

উপজেলার নামকরন
কালিয়াকৈর উপজেলা গাজীপুর জেলার দ্বীতীয় ক্ষুদ্রতম উপজেলা ১৯২৩ইং সন হতে কালিয়াকৈর থানা গঠন হয়।পর্যায়ক্রমে নামকরন করা হয়। এই উপজেলার নামকরনের সঠিক ইতিহাস কেহ বলতেনা পারলেও একটা ধারনা পাওয়া গেছে যে, একটা পুকুরে কালিয়ানাগ নামে একটা বৃহৎ সাপ পুকুরে ছিল।কালক্রমে কালিয়ানাগ এর কালিয়া এবং পুকুর এর কৈরা এই দুইশব্ধে মিলে কালিয়াকৈর নামকরন হয়।

ভৌগলিক পরিচিতি
কালিয়াকৈর উপজেলাটি ঢাকা টা্ংগাইল মহাসড়কের পার্শ্বে অবস্থিত। এর উত্তরে শ্রীপুর উপজেলা, জেলা- গাজীপুর এবং সফিপুর উপজেলা টাংগাইল,পূর্বে গাজীপুর সদর উপজেলা, দক্ষিণে সাভার এবং ধামরাই উপজেলা অবস্থিত।

উপজেলার পটভূমি
বৃটিশ শাসন আমল হতে কালিয়াকৈর পুলিশি থানা অবস্থিত এবং ১৯৮৩সালে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রশাসনিক বিকেন্দ্রী করনের মাধ্যমে উপজেলা পরিষদ গঠিত হয়।

ইউনিয়নসমুহ
কালিয়াকৈর উপজেলায় মোট ইউনিয়ন ৯টি রয়েছে, ইউনিয়নসমুহ নিম্নরূপ

১নং ফুলবাড়ীয়া,
২নং চাপাইর,
৩নং বোয়ালী,
৪নং মৌচাক,
৫নং শ্রীফলতলী
৬নং সূত্রাপুর
৭নং ঢালজোড়া
৮নং আটাবহ
৯নং মধ্যপাড়া
 
উপজেলার ঐতিহ্য বিখ্যাত ধনীরচিরা

নদ-নদী
তুরাগনদী, বংশাই নদী,
তুরাগ নদী কালিয়াকৈর উপজেলার একটি ঐতিহ্যবাহী নদী।

ভাষা ও সংষ্কৃতি
শ্রীপুর উপজেলার ভূ-প্রকৃতি ও ভৌগলিক অবস্থান এই উপজেলার মানুষের ভাষা ও সংস্কৃতি গঠনে ভূমিকা রেখেছে। বাংলাদেশের উত্তর-পূর্ব অঞ্চলে অবস্থিত এই উপজেলাকে ঘিরে রয়েছে দক্ষিনে গাজীপুর সদর উপজেলা,পশ্চিমে  সখিপুর, উত্তরে ভালুকা উপজেলা, পূর্বে গফরগাঁও, ঢাকা বিভাগ বিভাগের অন্যান্য উপজেলাসমূহ। এখানে ভাষার মূল বৈশিষ্ট্য বাংলাদেশের অন্যান্য উপজেলার মতই, তবুও কিছুটা বৈচিত্র্য খুঁজে পাওয়া যায়। যেমন কথ্য ভাষায় মহাপ্রাণধ্বনি অনেকাংশে অনুপস্থিত, অর্থাৎ ভাষা সহজীকরণের প্রবণতা রয়েছে। উপজেলা উপজেলার আঞ্চলিক ভাষার সাথে সন্নিহিত ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইলও ঢাকার ভাষার অনেকটা সাযুজ্য রয়েছে। শ্রতলক্ষা নদীর গতিপ্রকৃতি পাদদেশে শ্রীপুর, মানুষের আচার-আচরণ, খাদ্যাভ্যাস, ভাষা, সংস্কৃতিতে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন।

এই এলাকার ইতিহাস পর্যালোচনায় দেখা যায় যে শ্রীপুর সভ্যতা বহুপ্রাচীন। এই এলাকায় প্রাপ্ত প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন প্রাচীন সভ্যতার বাহক হিসেবে দেদীপ্যমান। সাংস্কৃতিক পরিমন্ডলে শ্রীপুর অবদানও অনস্বীকার্য।  প্রমুখ শিল্প সাহিত্য ভুবনবিখ্যাত সংগীতজ্ঞদের স্মৃতি বিজড়িত শ্রীপুর।

দর্শনীয়স্থান
১) জাতীয় স্কাউট  প্রশিক্ষণ কেন্দ্র মৌচাক
২) আনসার একাডেমী
সফিপুর আনসার একাডেমী বাংলাদেশর পুরাতন ও সনামধন্য পিকনিক ষ্পট ও সুটিং ষ্পট। সফিপুর আনসার একাডেমীতে আসার জন্য গাজীপুর জেলা সদর হতে ১০ কিলোমিটার পশ্চিমে বাস যোগ আসা যায়। তাছাড়া অন্যান্য মাধ্যমে আসা যায়। এখানে প্রতিবছর প্রধানমন্ত্রিী সরাসরি হেলিপ্যাডে এসে অবতরণ করেন।

৩) বলিয়াদী জমিদার বাড়ী
৪) শ্রীফলতলী জমিদার বাড়ী
গাজীপুর হতে কালিয়াকৈর উপজেলা এসে উপজেলা সদর হতে ১ কিলোমিটার দক্ষিণ পশ্চিমে রিক্সা যোগে শ্রীফলতলী জমিদার বাড়ী যাওয়া যায়।

৫) নন্দনপার্ক
৬) হাইটের্ক পার্ক
সাটুরিয়া মখশবিল, কালিয়াকৈর হতে বাসযোগে বড়ইবাড়ী বাজার সংলগ্ন স্থান। গাজীপুর হতে বাস যোগে মেৌচাক হয়ে বড়ইবাড়ী বাজার সংলগ্ন। ফুলবাড়ীয়া হতে বাস যাগে জামালপুর চেৌরাস্তা হয়ে বড়ইবাড়ী

প্রখ্যাত ব্যক্তিত্ব
শামসুল হক, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, সাবেক মন্ত্রী ও রাষ্ট্রদূত শামসুল হক একজন কৃতী সন্তান, কালিয়াকৈর উপজেলার জন্য।

খেলাধুলা ও বিনোদন
প্রাচীনকাল থেকেই  কালিয়াকৈর উপজেলা জনেগাষ্ঠী ক্রীড়ামোদী। এখানে প্রতিবছরই বিভিন্ন টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়। এখানকার জনপ্রিয় খেলার মধ্যে বর্তমানে ক্রিকেট ও ফুটবলের আধিপত্য দেখা গেলেও অন্যান্য খেলাও পিছিয়ে নেই। কালিয়াকৈরে বেশ কয়েকটি খেলার মাঠ রয়েছে।  প্রতি বছর নিম্নলিখিত ফুটবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়ঃ

(ক) গোল্ডকাপ ফুটবল
(খ) প্রিমিয়ার ফুটবল লীগ
(গ) ১ম বিভাগ ফুটবল লীগ
(ঘ) বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ।
(ঙ) বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ।
বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ড কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট খেলায় গত ২০১২সালে বিভাগীয় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।
ফুটবল, ক্রিকেট, ভরিবল, ব্যাটমিন্টন, ০২টি সিনেমাহল এবং নন্দনপার্ক

হাটবাজার
সফিপুর ও ফুলবাড়ীয়া সহ২০টি

জাতীয় সংসদ সদস্য
আলহাজ এ্যাডঃ আ. ক. ম মোজাম্মেল হকএমপি ,গাজীপুর-১ও মাননীয় মন্ত্রী মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রনালয়